BARTALIPI, বার্তালিপি , Bengali News, Latest Bengali News, Bangla Khabar, Bengali News Headlines, বাংলা খবর
Wednesday, 21 Apr 2021  বুধবার, ৭ বৈশাখ ১৪২৮
Bartalipi, বার্তালিপি, Bengali News Portal, বাংলা খবর

BARTALIPI, বার্তালিপি , Bengali News, Latest Bengali News, Bangla Khabar, Bengali News Headlines, বাংলা খবর

বাংলা খবর

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় বাংলা নিউজ পোর্টাল

নিৰ্দল হলে দীপায়নের ভোটে কতটুকু ভাগ বসাতে পারবেন দিলীপবাবু!

Bartalipi, বার্তালিপি, নিৰ্দল  হলে দীপায়নের ভোটে কতটুকু ভাগ বসাতে পারবেন দিলীপবাবু!


নিৰ্দল প্ৰাৰ্থী হিসেবে শিলচর বিধানসভা কেন্দ্ৰে কি শেষমেশ প্ৰতিদ্বন্দ্বিতায় নামছেন বিজেপির টিকিট বঞ্চিত দু’দু-বারের বিধায়ক দিলীপকুমার পাল? না এই জপ্লনার অবসান হচ্ছে না৷ এ নিয়ে এখনও মুখ খুলছেন না দিলীপবাবু৷ কিন্তু এরইমধ্যে সোমবার দিলীপ পালের হয়ে মনোনয়নপত্ৰ সংগ্ৰহ করে তাঁর ভোট যুদ্ধে নামার সম্ভাবনা আরও উসকে দিলেন প্ৰতিনিধি সুব্ৰত পাল৷

এ দিন মনোনয়নপত্ৰ সংগ্ৰহের পর জেলাশাসক কাৰ্যালয় চত্বরে দাঁড়িয়ে সুব্ৰত বাৰ্তালিপিকে জানিয়েছেন, দিলীপ পালের হয়েই মনোনয়নপত্ৰ তুলেছেন তিনি৷ নিৰ্দল প্ৰাৰ্থী হিসেবে শিলচর বিধানসভা কেন্দ্ৰে আলবৎ লড়বেন দিলীপবাবু৷ এতে কোনও সন্দেহ নেই৷ আগামী ১১ মাৰ্চ বৃহস্পতিবার দলবল নিয়ে এসে তিনি মনোনয়নপত্ৰ জমা দেবেন৷
দিলীপ পাল নিৰ্দল প্ৰাৰ্থী হলে কী হতে পারে শিলচরের ভোট চিত্ৰ? তিনি কি দীপায়ন চক্রবৰ্তীর ভোটে ভাগ বসাবেন? সেই ভাগাভাগিতে কি জিতে বেরিয়ে আসবেন তমাল বণিক?
শিলচরে ভোটের বাজারে এটাই কোটি টাকার প্ৰ৷ কিন্তু ভোটের পরিসংখ্যান ও বিভিন্ন সূত্ৰের বিশ্লেষণ কী বলছে?
২০১৪ সালের উপনিৰ্বাচনে বিজেপি প্ৰাৰ্থী দিলীপ পাল পেয়েছিলেন ৭৪,৮৯৮ ভোট৷ দু’বছর পর ২০১৬-র বিধানসভা নিৰ্বাচনে তিনি পান ৯৪,৭৮৭ ভোট৷ ২০১৯-এর লোকসভা নিৰ্বাচনে শিলচর বিধানসভা কেন্দ্ৰে রাজদীপ রায় পেয়েছিলেন এক লক্ষ পাঁচ হাজার ভোট৷
এই পরিসংখ্যানে একটা বিষয় স্পষ্ট, তা হল, ২০১৪ থেকে শিলচরে প্ৰাৰ্থী নিৰ্বিশেষে বিজেপির ভোট লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে৷ গত এই তিনটি নিৰ্বাচনে দলের কোনও না কোনও  শিবিরের বিদ্ধে অন্তৰ্ঘাতের অভিযোগ উঠেছে৷ এমনকি ২০১৬-এর বিধানসভা নিৰ্বাচনের আগে দিলীপবাবু তাঁর ঘনিষ্ঠ মহলে একথাও বলেছিলেন যে, দলের বিরোধী শিবির ভোট কাটলেও হাজার দেড় হাজারের বেশি তা হবে না৷
এই প্ৰেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে বিজেপির বিভিন্ন স্তরের নেতা কৰ্মীদের বিশ্লেষণ, শিলচর শহরে ৯,১০ নম্বর ওয়াৰ্ডে দিলীপবাবুর প্ৰভাব রয়েছে৷ আংশিক প্ৰভাব রয়েছে ১২, ১৩ নং ওয়াৰ্ডে৷ এই ওয়াৰ্ডগুলো মিলিয়ে তিনি বড়জোর হাজার তিনেক ভোট টানতে পারেন৷ বিজেপির একটি মহলের অঙ্ক এমনটাই৷
শুধু দলের নন, রাজনীতির খবর রাখেন, এমন দলমত নিৰ্বিশেষের অনেকেই একথা বলছেন যে, প্ৰাৰ্থী নন, বিজেপির প্ৰতীক চিহ্ন দেখে ভোট দেন মানুষ৷ বিশেষ করে হিন্দুরা৷ এ ক্ষেত্ৰে দিলীপ না দীপায়ন, সেটা কোনও বিচাৰ্য বিষয়ও নয়৷ ফলে দিলীপবাবু আখেরে বিজেপির ভোটে বড়সড় ভাগ বসাতে পারবেন না৷  


দিলীপ পাল শিলচর কেন্দ্ৰে লড়ছেন, এই তথ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় সুব্ৰত মনোনয়নপত্ৰ সংগ্ৰহ করার কিছুক্ষণের মধ্যেই৷ তবে বার বার যোগাযোগ করেও মনোনয়নপত্ৰ তোলা নিয়ে সরাসরি দিলীপ পালের কোনও মন্তব্য এ দিন পাওয়া যায়নি৷ কাৰ্যত কৌশলে নানা বাহানায় মিডিয়াকে এড়িয়ে যান তিনি৷ এ দিকে জানা গেছে, নিৰ্বাচনী ময়দানে নামার জন্যই শিলচর শহর ও শহরতলির বিভিন্ন জায়গা গত দু’তিন দিন ধরে চষে বেড়াচ্ছেন দিলীপ পাল৷ শহরের ফাটকবাজার নিউ মাৰ্কেট থেকে শু করে তিনি যাচ্ছেন বিভিন্ন গ্ৰাম পঞ্চায়েত এলাকায়ও৷ তাঁর সমৰ্থকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে ভোটে দাঁড়ানোর ব্যাপারে সাধারণ মানুষের মতামত নিচ্ছেন তিনি৷ জানার ও বোঝার চেষ্টা করছেন নিৰ্দল প্ৰাৰ্থী হিসেবে দাঁড়ালে মানুষ তাঁর সঙ্গে থাকবেন কি না, ভোট জেতা যাবে কি না৷