BARTALIPI, বার্তালিপি , Bengali News, Latest Bengali News, Bangla Khabar, Bengali News Headlines, বাংলা খবর
Wednesday, 21 Apr 2021  বুধবার, ৭ বৈশাখ ১৪২৮
Bartalipi, বার্তালিপি, Bengali News Portal, বাংলা খবর

BARTALIPI, বার্তালিপি , Bengali News, Latest Bengali News, Bangla Khabar, Bengali News Headlines, বাংলা খবর

বাংলা খবর

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় বাংলা নিউজ পোর্টাল

দেশের প্রধানমন্ত্রী মিথ্যা বলছেন, ভাবা যায়! মোদিকে নিশানা দিদির

Bartalipi, বার্তালিপি, দেশের প্রধানমন্ত্রী মিথ্যা বলছেন, ভাবা যায়! মোদিকে নিশানা দিদির

ডানলপের সাহাপুরের যে ময়দানে একদিন আগেই সভা করে গেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, সেই ময়দানের সভামঞ্চ থেকেই বুধবার মোদিকে পালটা নিশানা করে নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 'মিথ্যাবাদী' থেকে 'দাঙ্গাবাজ' কোনও বিশেষণই বাদ দিলেন না তিনি। সোমবার ডানলপের সাহাপুর থেকে নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রো-সহ বেশ কয়েকটি রেল প্রকল্পের উদ্বোধন করে 'বাংলায় রেল পরিকাঠামো উন্নয়নের কাজ শুরু হয়ে গেল' বলে মন্তব্য করেছিলেন মোদি। তার জবাবে পাহাড়পুরে দাঁড়িয়ে মুখ খুললেন মমতা। 
তিনি বলেন, 'তারকেশ্বর লাইন, মেট্রোর সম্প্রসারণ সব আমি করে গেছি। আর তুমি ফিতে কেটেছ। মানুষ সব দেখল, করল কে, ফিতে কাটল কে, দালালি করল কে!'  মমতা বলেন, 'ভালো মানুষ সাজতে আমিও দু-একটা কথা এদিক-ওদিক বলি। কিন্তু এরকম ডাঁহা মিথ্যা বলি না। মিথ্যারও একটা সীমা আছে।' এরপরই তাঁর কটাক্ষ, 'দেশের প্রধানমন্ত্রী মিথ্যা কথা বলছেন, ভাবা যায়!' 
মমতা বলেন, 'ক'দিন আগে প্রধানমন্ত্রী এসেছিলেন, তিনি অনেক বড় নেতা। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর চেয়েও বড়। উনি দু'দিকে দু'টো ট্রান্সপারেন্ট গ্লাস (টেলি প্রম্পটার) লাগিয়ে বক্তৃতা করেন। আমি তা করি না।' তৃণমূলকে, মমতার সাংসদ ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিজেপি বারবার 'তোলাবাজ' বলে আক্রমণ করছে। মোদি, অমিত শাহর মুখেও একই আভিযোগ উঠে এসেছে। এর পালটা মোদিকে এ দিন সরাসরি 'দাঙ্গাবাজ' বলে আক্রমণ শানান মমতা। 
সম্প্রতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী-শ্যালিকাকে কয়লা পাচার কাণ্ডে জেরা করেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। সেই কথা সরাসরি উল্লেখ না করেও ক্ষোভ উগড়ে দেন মমতা। বলেন, '২২-২৩ বছরের একরত্তি মেয়েকে, ঘরের মা-বোনেদের বলছে কয়লা চোর। আর আসল চোরদের কোলে তুলে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তোমার তো সারা গায়ে ময়লা। নোটবন্দির ময়লা। সেই টাকা গেল কোথায়, নরেন্দ্র মোদি জবাব দাও। কোল ইন্ডিয়া, রেল, সেল, বিএসএনএল কেন বিক্রি করে দেওয়া হচ্ছে, জবাব দাও।' 
ডানলপের মালিক পবন রুইয়ার শরৎ বোস রোডের বাড়িতে বিজেপি নেতারা থাকেন, এই মন্তব্য করে মমতা বলেন, 'আপনারা কি জানেন রুইয়ার বিরুদ্ধে কত মামলা ঝুলে আছে?' মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, ডানলপ অধিগ্রহণ করতে চেয়ে ২০১৬ সালে চিঠি দেওয়া সত্ত্বেও কেন্দ্র তা করতে দেয়নি। ডানলপের মাঠে মিটিং করতে আসার আগে প্রধানমন্ত্রীর উচিত ছিল এই কারখানা কেন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে তা জানতে চাওয়া। 
মমতা বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী এসে বলে গেলেন, বাংলায় মা-বোনেরা সুরক্ষিত নন। জিজ্ঞাসা করি, বিজেপিতে কি মা-বোনেদের সুরক্ষা আছে? উত্তরপ্রদেশ, গুজরাটে আছে?' তীব্র শ্লেষ ঝড়েছে এ দিন মুখ্যমন্ত্রীর গলায়। বলেন, 'এ দেশে এখন দু'টো নেতা। একজন হোঁদল কুতকুত, অন্যজন কিম্ভুত কিমাকার। আমি জানি না এর ইংরেজি মানে কী।' মমতা বলেন, 'আমার ওপর বিজেপির খুব রাগ। আপনারা আমাকে মারতে পারেন, খুন করতে পারেন, সব করতে পারেন। কিন্তু বাংলাকে আমি গুজরাট বানাতে দেব না।' 

তৃণমূল নেত্রীর মন্তব্য, 'খেলা তো হবেই। এই খেলাতেই ঠিক হবে বিজেপি দেশে থাকবে কিনা।' সাহাপুরের সভায় মমতার উপস্থিতিতে ঘাসফুলে নাম লেখালেন একঝাঁক তারকা— কাঞ্চন মল্লিক, জুন মালিয়া, মানালি দে, সায়নী ঘোষ। তৃণমূলে যোগ দিলেন ক্রিকেটার মনোজ তিওয়ারি ও ফুটবলার সৌমিক দে।