BARTALIPI, বার্তালিপি , Bengali News, Latest Bengali News, Bangla Khabar, Bengali News Headlines, বাংলা খবর
Wednesday, 21 Apr 2021  বুধবার, ৭ বৈশাখ ১৪২৮
Bartalipi, বার্তালিপি, Bengali News Portal, বাংলা খবর

BARTALIPI, বার্তালিপি , Bengali News, Latest Bengali News, Bangla Khabar, Bengali News Headlines, বাংলা খবর

বাংলা খবর

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় বাংলা নিউজ পোর্টাল

কালীঘাটে অভিষেকের বাড়িতে সিবিআই, সাতসকালে পৌঁছে গেলেন মমতাও

Bartalipi, বার্তালিপি, কালীঘাটে অভিষেকের বাড়িতে সিবিআই, সাতসকালে পৌঁছে গেলেন মমতাও

সিবিআইয়ের দল যাওয়ার আগেই মঙ্গলবার সকালে কালীঘাটের হরিশ মুখার্জি রোডে ভাইপো অভিষেকের বাড়ি 'শান্তিনিকেতন'-এ পৌঁছে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।‌ সকাল ১১ টা ৩৫ মিনিট নাগাদ অভিষেকের স্ত্রী রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য তাঁদের বাড়িতে পৌঁছন সিবিআই গোয়েন্দারা। তার মিনিট তিনেক আগে ওই বাড়ি থেকে বেরোতে দেখা যায় মমতাকে। রবিবার‌ বেআইনি কয়লা পাচার কাণ্ডে নোটিশ পাওয়ার পর মঙ্গলবার সিবিআই আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করবেন বলে ই-মেইল পাঠিয়ে জানিয়েছিলেন রুজিরা। সেই মতই 'শান্তিনিকেতন'-এ চলে যান সিবিআইয়ের ৯ জন আধিকারিক। প্রায় সওয়া একঘণ্টা ধরে চলে জিজ্ঞাসাবাদ। 


ব্যাঙ্ককের এক ব্যঙ্কে রুজিরার অ্যাকাউন্ট থেকে সন্দেহজনক লেনদেন সম্পর্কে তাঁর বক্তব্য শোনেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা।‌ জানতে চাওয়া হয় রুজিরা অন্য কোনও সংস্থার সঙ্গে যুক্ত কিনা। 'শান্তিনিকেতন' থেকে বেরনোর পর এ নিয়ে মুখ খোলেননি সিবিআই আধিকারিকরা। তবে জানা গিয়েছে, অভিষেক-জায়ার নাগরিকত্ব ও পাসপোর্ট সংক্রান্ত খুঁটিনাটি উঠে আসে এ দিনের জিজ্ঞাসাবাদ পর্বে। জানা গিয়েছে, রুজিরার নাগরিকত্বের বিষয়টিতে কোনও গোলমাল আছে কিনা তা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকেও ই-মেইল পাঠিয়ে জানতে চেয়েছে সিবিআই। এই বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যে সরব বিজেপি। গত লোকসভা ভোটের আগে যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘরণীর দ্বৈত নাগরিকত্বের বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। সেই মামলার নিষ্পত্তি এখনও হয়নি। 


বিজেপির অভিযোগ ছিল, রুজিরা নারুলা (বিয়ের আগের পদবী) ব্যাঙ্ককে জন্মগ্রহণ করায় তাঁর থাইল্যান্ডের পাসপোর্ট আছে। কিন্তু অনেক জায়গায় তিনি নিজেকে ভারতীয় নাগরিক বলে দাবি করেছেন।‌ তাছাড়া প্যান কার্ড ও এনআরআই সার্টিফিকেট পাওয়ার আবেদনে তিনি বাবার নাম এক জায়গায় নিফন নারুলা ও অন্য জায়গায় গুরুশরণ সিং আহুজা বলে উল্লেখ করেছেন বলে অভিযোগ। ভুল তথ্য দেওয়ার জন্য সেই সময় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের বিদেশি নাগরিক দফতর রুজিরাকে শো-কজও করে। একুশের বিধানসভা ভোট যুদ্ধের আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অন্যতম সেনাপতি অভিষেকের ঘরণীকে নিয়ে সেই বিতর্কিত নতুন করে মাথাচাড়া দিল। 


মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারের কোনও সদস্য এই প্রথম কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার জেরার মুখোমুখি হল। 

বিষয়টা নিয়ে মমতাও চিন্তিত তা এদিন সকালেই স্পষ্ট হয়ে যায়। সিবিআই পৌঁছনোর আগেই নবান্ন যাওয়ার পথে আচমকা অভিষেকের বাড়িতে পৌঁছে যান তিনি। সেখানে ছিলেন মিনিট দশেক। তবে শাসকদলের ব্যাখ্যা, মুখ্যমন্ত্রী বা দলনেত্রী হিসাবে নয়, পরিবারের 'অভিভাবক' হিসাবেই তিনি অভিষেকের বাড়ি গিয়ে দেখা করেন। 


উল্লেখ্য, সোমবারই সিবিআই গোয়েন্দারা জেরা করেছেন অভিষেকের শ্যালিকা মেনকাকে। প্রয়োজনে তাঁকে ফের জেরা করা হতে পারে বলে সিবিআই সূত্রে জানা গেছে। এ দিন 'শান্তিনিকেতন'-এ যায় যে ৯ সদস্যের সিবিআই দল, তার মধ্যে ছিলেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার লিগাল অ্যাডভাইসারি সেলের তিন আইনজীবী। সিবিআই আধিকারিক উমেশ কুমারের নেতৃত্বে এই গোয়েন্দা দলে ছিলেন ২ মহিলা আধিকারিকও। আসানসোল ও রানিগঞ্জের কয়লাঞ্চল থেকে বেআইনি কয়লা পাচার কাণ্ড নিয়ে সিবিআই এফআইআর দায়ের করে ২০১৯-এর নভেম্বরে। তবে এই তদন্তে গত কয়েক মাস যাবৎ কোমর বেঁধে ময়দানে নেমে পড়েছে সিবিআই। এই মামলায় অন্যতম মূল অভিযুক্ত যুব তৃণমূল নেতা বিনয় মিশ্র অভিষেকের ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত।