BARTALIPI, বার্তালিপি , Bengali News, Latest Bengali News, Bangla Khabar, Bengali News Headlines, বাংলা খবর
Wednesday, 21 Apr 2021  বুধবার, ৭ বৈশাখ ১৪২৮
Bartalipi, বার্তালিপি, Bengali News Portal, বাংলা খবর

BARTALIPI, বার্তালিপি , Bengali News, Latest Bengali News, Bangla Khabar, Bengali News Headlines, বাংলা খবর

বাংলা খবর

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় বাংলা নিউজ পোর্টাল

জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি নিয়ে জোর দ্বন্দ্ব বিজেপিতে

Bartalipi, বার্তালিপি, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি নিয়ে জোর দ্বন্দ্ব বিজেপিতে

জেলা ক্রীড়া সংস্থার এজিএম নিয়ে অশান্তি দেখা দিয়েছে শাসক দলে। বিশ্বরূপ ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে মিশন রঞ্জন দাসকে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে একটি লবি। বিবাদ মেটাতে ব্যর্থ সংঘ পরিবার। অবশেষে এই দু'জনকে বাদ দিয়ে তৃতীয় প্রার্থী হিসেবে শিক্ষাবিদ রামেন্দ্র ভট্টাচার্যের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। তবে রামেন্দ্রবাবুকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ময়দানে নেমে খেলা জমিয়ে দিয়েছেন আরেক দাবিদার মনোজিৎ চক্রবর্তী। এনিয়ে কার্যত বিভক্ত শাসকদল।

দ্বিতীয়বার ক্রীড়া সংস্থার জেলা সভাপতি হিসেবে বিশ্বরূপ ভট্টাচার্যের নাম একপ্রকার চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু একটি লবি মাঝপথে বিশ্বরাপবাবুর বিরুদ্ধে মিশন রঞ্জন দাসকে দাঁড় করিয়ে দেয়৷ এনিয়ে অশান্তির সৃষ্টি হয় শাসকদলের অন্দরমহলে। সমাধানে সংঘ পরিবারকে হস্তক্ষেপ করতে হয়। এমনকি গত বৃহস্পতিবার বিশ্বরূপ ও মিশনকে নিয়ে বৈঠকে বসে সংঘ পরিবার। এতে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির জেলা সভাপতি সুব্রত ভট্টাচার্যও। কিন্তু কোনও সমাধানসূত্র বের হয়নি৷ ফলে এই দু'জনকে বাদ দিয়ে তৃতীয় প্রার্থী হিসেবে রামেন্দ্র ভট্টাচার্যের নাম ঘোষণা করা হয়। তবে রামেন্দ্রবাবুকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ময়দানে নামেন মনোজিৎ চক্রবর্তী। তিনি প্রাক্তন ক্রিকেট খেলোয়াড়। তবে মজার বিষয়, রামেন্দ্রবাবুর নাম প্রকাশ্যে আসামাত্র একাংশ কংগ্রেসিরাই বিগড়ে যান৷ তাঁরা বিজেপি নেতাদের ফোন করে রামেন্দ্রবাবুর বিরোধিতা করতে শুরু করেন। তাদের মন্তব্য, রামেন্দ্রবাবু সংঘ পরিবারের হলেও তিনি বিধায়ক কমলাক্ষ দে পুরকায়স্থের ঘনিষ্ঠ। সুতরাং তাঁকে সভাপতি করা মানে প্রকারান্তরে কমলাক্ষকে সভাপতি করা একই কথা। এদিকে রামেন্দ্রবাবুর বিরোধিতা করে বিজেপির একটি লবি সক্রিয় হয়েছে। এমনকি তারা মনোজিৎ চক্রবর্তীর হয়ে প্রচার শুরু করেছে। তাদের কথা, মনোজিৎ প্রাক্তন ক্রিকেট খেলোয়াড়। এছাড়া অনুর্ধ্ব নিশ ক্রিকেট কোচও ছিলেন। সুতরাং মনোজিৎকে বাদ দিয়ে কমলাক্ষর রাজনৈতিক উপদেষ্টা রামেন্দ্র ভট্টাচার্যকে তারা কোনোভাবেই সমর্থন করবে না। এনিয়ে বিজেপির একটি বড় লবি রামেন্দ্রবাবুর বিরুদ্ধে চলে গেছে। যদিও একটি অংশ রামেন্দ্র ও মনোজিতের লড়াইয়ে মাঝপথে অমলেশ চৌধুরীকে জিতিয়ে আনার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানা গেছে। সব মিলিয়ে ডিএসএ-র নির্বাচন উত্তেজনাপূর্ণ হয়ে গেছে।