শিলচর ডিটেনশন ক্যাম্পের দুই বাংলাদেশি বন্দীকে সমঝে নিল বাংলাদেশ

শিলচর-ডিটেনশন-ক্যাম্পের-দুই-বাংলাদেশি-বন্দীকে-সমঝে--নিল-বাংলাদেশ
বার্তা লিপি প্রতিবেদন শিলচর,৫ অক্টোবর: শিলচর কেন্দ্রীয় কারাগারের ডিটেনশন ক্যাম্পে বন্দী হয়ে থাকা ২

বার্তা লিপি প্রতিবেদন শিলচর,৫ অক্টোবর

বার্তা লিপি প্রতিবেদন শিলচর,৫ অক্টোবর: শিলচর কেন্দ্রীয় কারাগারের ডিটেনশন ক্যাম্পে বন্দী হয়ে থাকা ২ বাংলাদেশি নাগরিককে মঙ্গলবার স্বদেশে প্রত্যাবর্তন করা হলো। করিমগঞ্জের বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী সুতারকান্দি সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশি দুজনকে হস্তান্তর করা হয় বিডিআরের হাতে।‌ তাদেরকে হস্তান্তর করেন আসাম পুলিশের  সীমান্ত শাখার পুলিশ ও বিএসএফ।

 বাংলাদেশে প্রত্যাবর্তন করা ২ বাংলাদেশী নাগরিকের নাম জাহানারা বেগম (৩৮) ও হবিব মোল্লা (৩৭) বলে জানা গেছে। ‌ জাহানারার বাড়ি বাংলাদেশের জেশর জেলার কটাওয়ালি থানার অধীন ফাতেহপুর গ্রামে। ‌ হবিব মোল্লা ওই দেশের পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া থানার অধীনস্থ বাদুরতলী গ্রামের বাসিন্দা।  বাংলাদেশি দুজনকে মঙ্গলবার সকালে ডিটেনশন ক্যাম্প থেকে সীমান্ত শাখার পুলিশ সমঝে  নিয়ে যায় বলে স্বীকার করেছেন শিলচর কেন্দ্রীয় কারাগারের সুপারেন্টেন্ড সত্যেন্দ্র বৈশ্য । 

  অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ করার অভিযোগে ২০১৩ সালে করিমগঞ্জ পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিল জাহানারা বেগম। ‌ গ্রেফতারের পর তাকে প্রেরণ করা হয়েছিল বিচারবিভাগীয় হেফাজতে। কয়েকমাস করিমগঞ্জ জেলা কারাগারে বিচারাধীন হাজতি  হিসাবে থাকার পর তাকে  অবৈধ বিদেশি বলে রায় দেয়  আদালত।  ঘোষিত বিদেশি হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার পর জাহানারাকে  করিমগঞ্জ কারাগার থেকে স্থানান্তরিত করা হয় শিলচর কেন্দ্রীয় কারাগারের ডিটেনশন ক্যাম্পে। ২০১৪ সালের ২ জানুয়ারি তাকে প্রেরণ করা হয় ডিটেনশন ক্যাম্পে । ওই দিন থেকে তিনি ডিটেনশন ক্যাম্পে বন্দিত্বের জীবন  কাটিয়েছিল।

     এদিকে, হবিব মোল্লাকেউ অনুরূপ অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ।  অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ করার অভিযোগে গ্রেপ্তার করার পর তিনিও  মাসকয়েক কারাগারে বন্দী হিসেবে ছিলেন। বিচার প্রক্রিয়ার শেষে তাকেও ঘোষণা করা হয়েছিল অবৈধ বিদেশি হিসেবে। এরপরে ২০১৪  সালের ১০ সেপ্টেম্বর তাকে প্রেরণ করা হয়েছিল ডিটেনশন ক্যাম্পে।

  এদিকে জাহানারা ও হবিব মোল্লার সাজা শেষ হওয়ার পরেও তারা অতিরিক্ত ভাবে বন্দীত্বের জীবন পার করতে হয়েছিল ডিটেনশন ক্যাম্পে।

এ নিয়ে বাংলাদেশ ও ভারত সরকার আলাপ-আলোচনা করে অবশেষে বাংলাদেশি দুইজনকে স্বদেশে ফিরিয়ে নিতে সম্মতি প্রকাশ করেন বাংলাদেশ। ‌ ইস্যু করেন তাদের জন্য ট্রাভেল পারমিট। এর ফল স্বরূপে মঙ্গলবার বাংলাদেশি দুজনকে সমঝে দেওয়া হয় বিডিআর এর কাছে। 

   এই দুইজন বাংলাদেশীকে স্বদেশে সমঝে দেওয়ার পর বর্তমান শিলচর ডিটেনশন ক্যাম্পে আরো ৬৪ জন বিদেশি রয়েছে বলে জানা গেছে। এদের মধ্যে সর্বাধিক বিদেশি মায়ানমারের। মায়ানমারের মোট ৫১ জন বন্দীর মধ্যে ২৬ জন শিশু। এর বিপরীতে বাংলাদেশি ১০ জন, নাইজেরিয়ার ২ জন এবং কেনিয়ার একজন নাগরিক ঘোষিত  বিদেশি হিসেবে বন্দি হয়ে আছে  ডিটেনশন ক্যাম্পে।




Bartalipi Digital Desk

Bartalipi Digital Desk

Bartalipi Digital Desk

Total 49 Posts. View Posts


About us

প্রিন্ট এবং ইলেকট্রনিক মিডিয়ার যুগে খবরের সত্যতাটির পক্ষপাতদামুক্ত উদ্যোগ / দীক্ষা প্রয়োজন। ক্লান্তিকর সংবাদগুলি আর সাধারণ মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে না। অভ্যন্তরীণ খবরে বৈশ্বিক কোণ থেকে বর্ণিত করার লক্ষ্যে, "বার্তালাপি ডিজিটাল" ডিজিটাল সাংবাদিকতার মাঠে প্রবেশ করেছে। শিরোনামের মিশ্রণটি তার লক্ষ্য এবং লক্ষ্যটির স্ব-ব্যাখ্যামূলক। বৈশিষ্ট্যগুলি, নিউজফ্ল্যাশগুলি এর মাধ্যমে একটি প্ল্যাটফর্মে সমস্ত সিঙ্ক করা হয়, এটি বারাকের নেটিজেনদের একটি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ আভা দেয়। বার্তালাপি ডিজিটাল তাই ডিজিটাল ভারসাম্য পূরণের প্রতিশ্রুতি দেয় যা এটি ডিজিটাল বিবর্তনের যুগে একটি সংবাদ সংস্থা হিসাবে চিহ্নিত করবে




Follow Us